সেতুর নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা

নিজস্ব প্রতিনিধি   ২৬শে সেপ্টেম্বর , ২০১৮

কলকাতা, ২৫শে সেপ্টেম্বর – কলকাতাসহ অন্যান্য জেলায় একের পর এক সেতু ভেঙে পড়ছে। সেই সেতু বিপর্যয় মোকাবিলা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিগত দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে আলোচনা হলো ইনস্টিটিউট অব ইঞ্জিনিয়ার্স হলে। মঙ্গলবার এই অনুষ্ঠান হয় পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মঞ্চ কলকাতা জেলা কমিটির উদ্যোগে। সভায় বক্তব্য রাখেন, অধ্যাপক পার্থপ্রতিম বিশ্বাস, অধ্যাপক বিশ্বজিৎ সোম, অধ্যাপক অরূপ গুহ নিয়োগী। উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক প্রদীপ মহাপাত্র, কলকাতা জেলার কার্যকরি সভাপতি উৎপল দত্ত।

এদিন বক্তারা সেতু তৈরির পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত জানান। তাঁরা বলেন, যে ভাবে একের পর এক সেতু ভেঙে পড়ছে এই পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষকেও সচেতন থাকতে হবে। কাঠামো কথা বলে তা আমাদের শুনতে হবে। উদাহরণ দিয়ে বলেন, পোস্তা সেতু ভাঙার আগে আওয়াজ হয়েছিল। তা শোনার পরেও কাজ চালিয়ে যাওয়াতে বিপর্যয় ঘটে গেছে। তাঁরা তেলের মূল্য বৃদ্ধিকেও একটা কারণ হিসাবে বলেন। বক্তারা জানান, যেভাবে তেলের দাম বাড়ছে তাতে বড়গাড়ি গাড়ি সংখ্যায় বেড়েছে। যাতে এক সঙ্গে বেশি মাল বা যাত্রীবহন করা যায়। তবে বহু দিন আগে বানানো সেতু তা নিতে পারছে না। সমতলে হলে বছরে বর্ষার পরে এক বার এবং নদী বা পাহাড়ে বছরে বর্ষার আগে ও পরে একবার করে দুবার নজরদারি বাধ্যতামূলক ভাবে করতে হবে। ত্রুটি থাকলে তড়িঘড়ি মেরামত করতে হবে যা রাজ্যের সেতুগুলোর ক্ষেত্রে না হওয়াতেই এমন ভাবে ভেঙে পড়ছে। সেতু নকশা পরিকল্পনার আগে জানতে হবে দিনে কী পরিমাণ গাড়ি যাবে ও কত ভারী গাড়ি যাবে। সেটা মাথায় রেখেই পরিকল্পনা নেওয়া দরকার। মাঝেরহাটে পিচের মোটা স্তর একটি অন্যতম কারণ ও কংক্রিটের ভিতর জল প্রবেশ ভেঙে পড়ার কারণ হতে পারে বলেই দাবি করেন বক্তারা। এদিন অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আনন্দদেব মুখোপাধ্যায়।



Current Affairs

Featured Posts

Advertisement